RSS

জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সুদখোর ধরতে মাঠে নামছে প্রশাসন

‌বিশেষ প্রতিবেদকঃ
দেশের প্রতিটি জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সুদখোরদের ধরতে মাঠে নামছে প্রশাসন। পুলিশ হেড কোয়াটার্সের নির্দেশনায় ইতি ম‌ধ্যে মা‌ঠে কাজ শুরু হয়েছে। পুলিশ সুপার ও থানা অফিসার ইনচার্জরা এব্যাপারে মাঠ পর্যায়ে তদারকিও শুরু করেছেন। সরকারকে ফাঁকি দিয়ে চলা সারা দেশের সুদখোরদের মূলোৎপাঠনের তালিকা শুরু হয়েছে। সুদখোরের তালিকায় ব্যক্তি কেন্দ্রিক সুদে কারবারি, মাল বাকিতে দিয়ে অতিরিক্ত সুদ আদায়কারী ব্যবসায়ী, অনুমোদনহীন এনজিও সমবায় সমিতি রয়েছে। এছাড়া সরকার অনুমোদিত ব্যাংকিং সিস্টেম ছাড়া পরিচালিত প্রতিষ্ঠান ও পরিচালনা কারীরা সুদখোরদের আওতায় পড়বে। যে কারণে মাথায় হাত উঠতে শুরু করেছে চিহ্নিত ও আলোচিত সব সুদে কারবারিদের। সরকারের লাখ লাখ টাকা রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে গোপনে চড়া সুদ (মুল টাকার চেয়েও কয়েকগুনের বেশি আদায়) আদায় করা চক্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতেই সরকারের এই প্রয়াস।
পুলিশ‌ের এক‌টি সূত্র জানিয়েছে, সরকার অনুমোদন ছাড়াই দেশে হাজার হাজার অর্থ লেনদেনকারী প্রতিষ্ঠান, অনুমোদনহীন শত শত এনজিও, সমবায় সমিতি সুদ আদায় করছে। এমনকি অসাধু অনেক ব্যক্তি উদ্যোগে সুদে কারবার চলছে। শহর থেকে শুরু করে গ্রামাঞ্চলে হাজার হাজার সুদখোর চক্র মাথা চাড়া দিয়ে দরিদ্রদের ভূমিহীন করাসহ আরো দরিদ্র করছে। সুদের সুদ তার সুদ আদায় করে ভিটাবাড়ি থেকে উচ্ছেদ করছে এমন চিত্র চোখে পড়ছে হরহামেশাই। সরকার ও সরকারের চেকপোস্ট খ্যাত প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে অনুমোদন না নেওয়ায় কোটি কোটি টাকা রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার। আবার কোনো জবাবদিহিতার আওতায় আসছেনা তারা। যে কারণে দেশে সরকারের নির্দেশনায় গত নভেম্বর মাসে পুলিশ হেডকোয়াটার্স থেকে সুদখোরদের তালিকা করার নির্দেশনা এসেছে পুলিশ স্টেশনগুলোতে।
সূত্রটি দাবি করেছে বিভিন্ন এলাকায় সংঘবদ্ধ সুদে কারবারি সিন্ডিকেটের তৎপরতা ও অত্যাচারে দিশেহারা হয়ে পড়েছে মানুষ। সিন্ডিকেটটি দাদন ব্যবসার নামে দরিদ্র লোকজনকে শোষণ করছে। প্রতি মাসের সুদের কিস্তি দিতে ব্যর্থ হলেই সুদে কারবারিরা মোটরসাইকেলে দল বেঁধে ঋণগ্রস্থ ব্যক্তির বাড়িতে গিয়ে চড়াও হচ্ছে। সুদ ব্যবসায়ীরা প্রভাবশালী হওয়ায় প্রতিনিয়ত বাড়ছে ব্যবসায়ীর সংখ্যা। সুদে ব্যবসায়ীরা চুক্তি ভিত্তিক, দিন কিস্তি, সাপ্তাহিক কিস্তি ও মাসিক কিস্তিতে টাকা দিয়ে থাকেন। তবে মাসিক কিস্তির চাইতে চুক্তি ভিত্তিক দিন কিস্তিতে সুদের হার বেশি। চুক্তি ভিত্তিতে সকালে কেউ এক লাখ টাকা নিলে বিকেলে বা রাতে এক লাখে ২/৩ হাজার টাকা দিতে হবে। এর ব্যতিক্রম হলে সুদের হার দ্বিগুণ দিতে হচ্ছে। দিন কিস্তিতে সর্বমোট মাসিক সুদের হার লাখে ২০ হাজার থেকে ৩০ হাজার টাকা। লাখে মাসিক কিস্তিতে সুদের হার ১৫ হাজার থেকে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত হচ্ছে। এদিকে সাধারণ মানুষ বলছেন সরকারিভাবে বিনিয়োগ না দেওয়ায় আমরা সুদি কারবারীদের কাছ থেকে উচ্চ সুদে টাকা নিতে বাধ্য হচ্ছি। সরকার চাইলে অল্প সুদে টাকা দিতে পারে বিনিয়োগকারীদের আর এতে করে জনভোগান্তি কমবে সাধারণ মানুষের এমনটাই বলছেন সচেতন মহল ।

 

 

জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে  সুদখোর ধরতে মাঠে নামছে প্রশাসন

 
 

বর্ণ টিভি শুভ উদ্বোধন

ভাষার মাসে অফিসিয়ালভাবে বর্ণ টিভি যাত্রা শুরু বর্ণাঢ়্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে অনলাইন চ্যানেল বর্ণ টিভি শুভ উদ্বোধন সমপন্ন হয়েছে৷ প্রাণের আওয়াজ এই স্লোগানকে ধারণ করে ১৮ই ফেব্রুয়ারী সৌদি আরবের রিয়াদে জমকালো আয়োজনের মধ্য দিয়ে বর্ণ টিভির শুভ উদ্বোধন করা হয় ৷ স্থানীয় আল ফাখামা কমিউনিটি সেন্টারকে সাজানো হয় ব্যানার, ফেস্টুন, লাল সবুজ বর্ণ মালা ও বর্ণ টিভির রঙে৷ এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হিসেবে উপস্থিত থেকে কেক কেটে শুভ উদ্বোধন ও লগো উন্মোচন করেন কটন হাউজের জেনারেল ম্যানেজার মোঃ শাহিন সাদিকীন৷ বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রবাসী সাংবাদিক ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও এনটিভি সৌদি আরব প্রতিনিধি সাংবাদিক ফারুক আহমেদ চান, রিয়াদ বাংলাদেশ ইন্টারন্যাশনাল স্কুল এন্ড কলেজ বিওডি’র ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ রফিকুল ইসলাম, ঢাকা মেডিকেল সেন্টারের এমডি আব্দুল্লা আল-মামুন, রাজনীতিবিদ গাজী সাঈদ, সমাজ সেবক শরিফুল আলম, ব্যবসায়ী মোঃ কবির হোসেন, অলাইয়া কম্পিউটার মার্কেটের ফুটবল টিমের ম্যানেজার আবিদুর রহমান রোকন, সমাজ সেবক মোঃ বেলাল হোসেন৷ এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন গ্রীন বাংলা ক্রিকেট টিমের মার্কেটিং ও মিডিয়া ম্যানেজার ফখরুল ইসলাম, সমাজ সেবক কাজী বাতেন, মোঃ বকুল, আব্দুস সালাম কিরণ, কলতান সংগীত একাডেমীর প্রতিষ্ঠাতা মোমতাজ উল আলম তাজ, প্রতিষ্ঠাতা মোঃ জামসেদ রাণা, প্রতিষ্ঠাতা মঞ্জুর আল ইসলাম, রিয়াদ বাংলাদেশ থিয়েটারের সম্বনয়ক ও উৎসব টেলিফিল্মের পরিচালক সারোয়ার সাহান সিদ্দিকী, ফয়সাল সিসি টিভির সত্বাধিকারী মোঃ ফয়সাল মিয়া৷ এসময় চ্যানেলটির আগামী দিনের অগ্রগতি নিয়ে অনুভূতি ব্যক্ত করেন, প্রবাস বাংলা ফুটবল ক্লাবের ম্যানেজার ও মুন্সিগঞ্জ প্রবাসী কল্যাণ সমিতি’র সভাপতি মোঃ জাহাঙ্গীর আলম৷ বিশিষ্ট সমাজসেবক সাংবাদিক জাহাঙ্গীর আলম ও রিয়াজ মাহমুদ, শেখ ওয়াজেত, মোঃ বাদল, মোঃ জাহিদ প্রমূখ৷ তারা বলেন, নিরপেক্ষ সংবাদ পৌছে দিয়ে কোটি মানুষের মনে জায়গা করে নেবে বর্ণ টিভি , তিল তিল করে একদিন স্যাটেলাইট চ্যানেলে রুপান্তরিত হবে৷ অনুষ্ঠানের ২য় পর্বে সাংস্কৃতিক পরিবেশনায় বিশেষ আকর্ষণ ছিল বাউল মালী দেওয়ান ও তার দল৷ গান পরিবেশন করেন, জনপ্রিয় শিল্পী আপন, মামীতা, নাশরা কিরণ৷ মন মাতানো নৃৃৃত্য দিয়ে দর্শকদের মাতিয়ে রাখেন, ওয়াফা, মারওয়া, আরওয়া , তন্নী৷ জমকালো এই উৎসব মুখর অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন চ্যানেলটির সত্বাধিকারী ফকির আল-আমিন৷ তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বিশ্বাস করে বর্ণ টিভি কাজ করবে, অসহায়, নিপীড়িত মানুষের কথা বলবে, বিশেষ করে বাংলাদেশ স্পোর্টস ও রেমিটেন্স যোদ্ধাদের পাশে থাকবে বর্ণ টিভি৷ তিনি আরো বলেন সকলের সহযোগিতা পেলে বর্ণ টিভিকে একটি পূর্ণাঙ্গ স্যাটেলাইট টিভিতে পরিনিত করবো৷ এর আগে পবিত্র কালাম থেকে তেলাওয়াত করেন এনটিভির রিয়াদ প্রতিনিধি জুয়েল ফকির৷ এর পর পর সকল শিল্পীদের অংশ গ্রহনে সমবেত কন্ঠে জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়৷ ভাষার মাসে বর্ণ টিভির শুভ লগ্নে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে সেই চির চেনা গান আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারী গানটি গাওয়া হয়৷ বর্ণ টিভির এই আয়োজনে গর্বিত স্পন্সর হিসেবে ছিলেন রিয়াদে ঢাকা মেডিকেল সেন্টার, বাংলাদেশি ব্রান্ড কটন হাউজ লিমিটেড, প্রবাসী সেবা কেন্দ্র, ফ্রেন্ডী ভারজিন মোবাইল, ফয়সাল সিসি টিভি, ও নাহার রেস্টুরেন্ট৷ অনুষ্ঠানে লাল সবুজের পাঞ্জাবী পরিধান করে ভলেন্টিয়ার হিসেবে দায়িত্বে ছিলেন মোঃ মাকবুল হোসেন রুবেল, জাকির আহমেদ, সানাউল্লাহ আপন তাজ, মোঃ রুহুল আমিন রাহুল, ফকির মোস্তাকিম, মোঃ মোবারক হোসেন, মোঃ জুলহাস, মোঃ শরিফ উদ্দিন, মোঃ এনামুল হক প্রমূখ৷ পুরো অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন সাহিদা আক্তার সিফা ও মোঃ হানিফ মাহমুদ৷ পুরো রাতভর নাচে গানে আনন্দঘন পরিবেশে প্রবাসীদের মাতিয়ে রাখেন শিল্পীরা৷ এ জমকালো আয়োজনে পরিবার পরিজন নিয়ে অনুষ্ঠান উপভোগ করেন বিশিষ্টজনেরা৷

 

Image may contain: 4 people, people standing and indoor

Image may contain: 2 people, including Hanif Mahmud, people standing

 
 

আমি যখন মারা যাবো।

১) মাইকে আমার মৃত্যুর খবর বলবেন না..
২) আমার মৃত্যুর সংবাদ শুনলে পড়ুন “ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রজিউন”
৩) আমার মৃত্যুকে অকাল মৃত্যু বলবেন না, কারণ আমি আমার নির্ধারিত রিযিক ভোগ করে ফেলেছি।
৪) আমাকে নিয়ে বিলাপ-মাতম করবেন না কারণ এটা সুন্নাহ বিরোধী কাজ,
৫) আমার মৃত্যুতে চল্লিশা, কুল-খানি, মিলাদ করবেন না .. কারণ এটা স্পষ্ট বিদ’আত,
৬) যারা আমার মৃত্যুর খবর শুনবেন বা যারা আমার মৃত্যুর সময় থাকবেন তারা অবশ্যই আমার জানাজায় অংশগ্রহণ করবেন…. অন্ততপক্ষে 40 জন যেন হয়….
৭) আমার লাশ কাউকে দেখাবেন না
৮) আমার লাশকে সুন্দরভাবে গোসল করার ব্যবস্থা করে দিবেন,
৯) লাশ দাফনে ইসলামিক রীতিনীতি অবলম্বন করবেন…. সমাজের নয়
১০) আমাকে কবরস্থ করার পর কিছুক্ষণ সেখানেই থাকুন।
১১) আমার কবরের আজাব লাঘবের জন্য দোয়া করবেন
১৩) আমার হয়ে দান-সাদাকা করবেন
১৪) আমার সাদাকায়ে জারিয়া চালু থাকলে সেটার খবর নিয়েন,, সে গুলোকে সমুন্নত করার চেষ্টা করবেন।
১৫) আমার পরিবারের খবর নিয়েন

¶একটা ছোট্ট অনুরোধ কারো কাছে যদি আমার কোন ছবি থাকে তাহলে আল্লাহর জন্য আল্লাহকে ভয় করে অবশ্যই ডিলিট করে দিবেন¶

১৬) আমার মৃত্যু থেকে শিক্ষা নিয়ে ফিরে যাবেন… আপনার সময়ও অতি নিকটে..!!

 

No photo description available.

 
 

বিজয়নগরে সরকারি খাল দখলের মহোৎসব

bij 23-1-14

বিজয়নগরে চলছে সরকারি খাল দখলের মহোৎসব। এলাকার কতিপয় প্রভাবশালী ব্যক্তি উপজেলা সদরের মির্জাপুর ভূমিঅফিসের সামনের সরকারী খালটি ভরাট করে ফেলছে। ইতিমধ্যেই কয়েকজন দখলদার খালের অংশ বিশেষ ভরাট করে সেখানে বাড়ি-ঘর ও দোকান পাট নির্মাণ করেছেন। এলাকার সাধারন লোকজন দখলবাজদের ভয়ে কিছু বলতে পারছেনা।
এলাকাবাসী জানান, খালটি ভরাট করার ফলে পানি নিস্কাশন ব্যবস্থা বাঁধাগ্রস্ত হবে। এতে করে পরিবেশের ভারসাম্যও নষ্ট হচ্ছে। অভিযোগকারীরা বলেন সাব রেজিষ্ট্রার মোঃ শাহআলমকে ম্যানেজ করে এলাকার তাহের মিয়া, ইদন মিয়া, আক্তার মিয়া, রওশন মিয়াসহ একাধিক প্রভাবশালী ব্যক্তি খালে মাটি ফেলে ভরাট করছে। ইতিমধ্যেই দখলবাজদের অনেকে খাল ভরাট করে বাড়ি ঘর দোকান নির্মান করেছেন।
এ ব্যাপারে খাল ভরাটকারী রওশন মিয়া বলেন, সাব রেজিস্ট্রার মোঃ শাহ আলমের অনুমতি নিয়েই আমি খাল ভরাট করেছি।
এ ব্যাপারে সাব-রেজিষ্টার মোঃ শাহআলমের সাথে কথা বলার জন্য তার মোবাইল ফোনে (০১৭৩৭-৮৫৬৪৫৯) কয়েক দফা যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।
এ ব্যাপারে ইছাপুরা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হাজী আকতার হোসেন বলেন, সরকারি খালটি ভরাটের ফলে এলাকার পানি নিষ্কাশন ব্যবস্থা বাঁধাগ্রস্ত হবে। এতে করে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে। তিনি অবিলম্বে খালটি দখলমুক্ত করার দাবি জানান।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ বশিরুল হক ভূইয়া খাল ভরাটের কথা স্বীকার করে বলেন, খাল ভরাটকালে গত সোমবার একটি ট্রাক আটক করে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে ১ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেছি। ইতিমধ্যে যারা খাল দখল করে ঘর-বাড়ি ও দোকান  নির্মান করেছেন তাদেরকে উচ্ছেদ করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি খাল দখল মুক্ত করতে এলাকাবাসীকে সচেতন হওয়ার পাশাপাশি প্রশাসনকে সহযোগিতা করার আহবান জানান।

 

বাড়িয়ে নিন ফেসবুকের নিরাপত্তা

ফেসবুক পাসওয়ার্ড চুরির কারণ ফেসবুকের পাসওয়ার্ড চুরি হয়ে গেলে কী হবে তা নিশ্চয়ই বিস্তারিত বলার প্রয়োজন নেই। আসুন জেনে নিই কীভাবে আপনি নিজের অজান্তেই ফেসবুকের পাসওয়ার্ড দিয়ে দিতে পারেন অন্যের হাতে। ফেসবুক অ্যাপ্লিকেশন, কজ ও বিজ্ঞাপন একথা বারবারই বলা হয় যে, ফেসবুকের অসংখ্য অ্যাপ্লিকেশনের অধিকাংশই নিরাপদ নয়। কিছুদিন আগে ফার্মভিলের মতো সর্বাধিক জনপ্রিয় কিছু অ্যাপ্লিকেশন ও গেমও ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদন অনুসারে স্বীকার করেছে যে, তারা বিজ্ঞাপনের স্বার্থে তাদের ব্যবহারকারীদের কিছু তথ্য দিয়েছে। এছাড়াও অসংখ্য অ্যাপ্লিকেশনের ভাণ্ডারে হঠাত্ই হয়তো এমন কোনো অ্যাপ্লিকেশন থেকে আপনাকে রিকোয়েস্ট বা ইনভাইট পাঠানো হলো যেটা এমন পাসওয়ার্ড চুরি করে এবং এখন পর্যন্ত ধরা পড়েনি। আসল কথা হলো, এসব অজানা-অচেনা কজ, অ্যাপ্লিকেশন ইত্যাদি থেকে যত দূরে থাকা যায় ততই ভালো। অন্যথায় এসবের মাধ্যমে আপনার পাসওয়ার্ড বা অন্যান্য ব্যক্তিগত তথ্যাদি হ্যাকারদের হাতে চলে যাওয়াসহ আপনার অ্যাকাউন্টের নিয়ন্ত্রণই চলে যেতে পারে। ফেসবুক ই-মেইল ফিশিং ই-মেইলের মাধ্যমেও আবার ফেসবুকের পাসওয়ার্ড চুরির শিকার হতে পারেন একটু অসতর্ক হলেই। অনেক চালাক হ্যাকাররা ঠিক ফেসবুক নোটিফিকেশনের মতো করে ই-মেইল তৈরি করে এবং তা ফেসবুকের মতোই কাছাকাছি কোনো ডোমেইন থেকে ই-মেইল আকারে পাঠায়। এসব ই-মেইলে থাকা লিঙ্কগুলো ক্লিক করলে যে সাইটটি ওপেন হবে সেটিও অবিকল ফেসবুকের মতোই হবে। কিন্তু মূলত এটি ফিশিং সাইট। এর ফলে আপনার ইউজারনেম ও পাসওয়ার্ড নিশ্চিন্তে হ্যাকার মশাইরা পেয়ে যাচ্ছে। এসব আক্রমণ থেকে বাঁচতে সবসময় ই-মেইলের লিঙ্কে ক্লিক করার আগে দেখে নেয়া উচিত তা ভধপবনড়ড়শ.পড়স ঠিকানাতেই যাচ্ছে কি-না। কারণ, যত যা-ই হোক, ফেসবুকের ঠিকানা ঠিক থাকলে লগইন করতে আর কোনো ঝামেলা নেই। ফেসবুক শেয়ার বাটন থার্ড পার্টি সাইটের বিভিন্ন কন্টেম্লট যেমন পোস্ট, ছবি, ভিডিও ইত্যাদি ফেসবুকে শেয়ার করার জন্য শেয়ার বাটন যুক্ত করা থাকে। মূলত ব্যবহারকারীর সুবিধার্থেই এই ফেসবুক শেয়ার বাটনগুলো যুক্ত করা হয়। কিন্তু এই শেয়ার বাটনও কিন্তু আপনার ফেসবুকের পাসওয়ার্ড চুরির কারণ হতে পারে। অনেক হ্যাকার তাদের সাইটে শেয়ার বাটন নিজেরা যোগ করে এবং সেখানে ক্লিক করলে যে সাইট ওপেন হয়, সেটা ফেসবুকের মতো দেখতে হলেও তা আসলে ফিশিং সাইট। আপনি ফেসবুক মনে করে লগইন করার চেষ্টা করতে গেলেই আপনার পাসওয়ার্ড চলে যাবে তাদের হাতে। এক্ষেত্রেও আপনি যদি সতর্ক থাকেন তাহলে ফিশিং সাইট এড়াতে পারবেন। কেবল খেয়াল রাখবেন, যে লিঙ্কে ক্লিক করছেন তা ভধপবনড়ড়শ.পড়স কি না। পাবলিক কম্পিউটারে লগইন সাইবার ক্যাফে বা এজাতীয় পাবলিক কম্পিউটারে লগইন করার সময়ও সতর্ক থাকতে হবে। সাইবার ক্যাফে থেকে লগইন করার সবচেয়ে বড় ঝুঁকি হচ্ছে কি-লগার। অনেক সফটওয়্যার আছে যেগুলো কম্পিউটারে থাকলে আপনি ব্রাউজিং করার সময় ব্যবহৃত সব পাসওয়ার্ড সেভ করে ফেলে। তবে ফায়ারফক্স বা ক্রোম ব্যবহার করলে এই ঝুঁকি থাকে না বলেই জানা গেছে। তবে আরেকটি সাধারণ ভুল অনেকেই করেন, তা হলো remember me/keep me logged in বক্সে টিক দিয়ে লগইন করেন। অথবা পাসওয়ার্ড সংরক্ষণ করার অনুমতি চাইলে অনেকে না বুঝেই বা তাড়াহুড়োয় সেভ করে ফেলেন। এতে করে আপনার অ্যাকাউন্টের পাসওয়ার্ড চুরি না হলেও আপনার অ্যাকাউন্টে অন্য কেউ অ্যাক্সেস পেয়ে যাচ্ছে, যা সমানভাবেই ক্ষতিকর। ফেসবুক আইডি হ্যাক হলে উদ্ধারের উপায় আপনার শখের ফেসবুক আইডিটি যদি হ্যাক হয়ে যায় তাহলে কী করবেন? যে হ্যাক করেছে তাকে গালাগাল করবেন নাকি বন্ধুুদের অনুরোধ করবেন আপনার আইডিটি রিপোর্ট করে ব্লক করে দিতে? আগে হয়তো এই কাজই করতেন, কিন্তু এখন আর না। এখন হ্যাক হওয়া ফেসবুক আইডিও উদ্ধার করা যায়। তার আগে জেনে নিই কী কী উপায়ে আইডি হ্যাক হতে পারে— ১. পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করে ও ২. ই-মেইল অ্যাড্রেস পরিবর্তন করে। পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করা হলে যা করবেন ধরুন কেউ একজন অগোচরে আপনার ফেসবুক আইডির পাসওয়ার্ড জেনে গেছে এবং অ্যাকাউন্টে লগইন করে আপনার পুরনো পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করে নতুন পাসওয়ার্ড সেট করে দিয়েছে। এখন আপনি আর পুরনো পাসওয়ার্ড দিয়ে ফেসবুকে লগইন করতে পারবেন না। যদি এ ধরনের সমস্যায় পড়েন তবে রয়েছে সমাধান। এ সমস্যা সমাধানের জন্য নিচের লিঙ্কে যান— http://www.facebook.com/help/identify.php?show_form=hack_login_changed এরপর পরবর্তী নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করুন। ই-মেইল অ্যাড্রেস পরিবর্তন করা হলে যা করবেন এবার মনে করুন আপনি আগের চেয়েও উন্নম্নত মানের একজন হ্যাকারের হাতে পড়েছেন যে শুধু আপনার পাসওয়ার্ড পরিবর্তন করেই ক্ষান্ত হয়নি, পরিবর্তন করে ফেলেছে আপনার ই-মেইল অ্যাড্রেসও। এক্ষেত্রেও আছে সমাধান।

 

।। এই গরমে সুস্থ থাকবেন যে ভাবে ।।

গরমে সুস্থ থাকুন

images

সূর্যের প্রখরতা বেড়েছে। তাই এই প্রচন্ড গরমে সুস্থ থাকার পাশাপাশি সুন্দর থাকার জন্য একটু বাড়তি যতœ নেয়া জরুরি। । তাই গরমে সতেজ এবং সুন্দর থাকতে চাইলে কিছু টিপস্ মেনে চলতে হবে।

ত্বকের যত্ন
* গরমে ত্বক শুষ্ক হয়ে পড়ে। তাই রূপচর্চা করা জরুরি। ত্বক তৈলাক্ত হলে বার বার মুখ পরিষ্কার করতে হবে। শসা বাটা এবং মশুরী ডাল বাটা দুটো পেস্ট করে মুখে লাগিয়ে ১৫ মিনিট পর মুখ ধুয়ে ফেলুন। আপনার মুখের তেলতেলে ভাব কেটে যাবে।

* লাউয়ের রস, তরমুজের জুস বরফ করে মুখে ঘষুন। এতে সাথে সাথে আপনার ত্বক হয়ে উঠবে উজ্জ্বল মোলায়েম।

* মুখে ব্রণের গোটা থাকলে কখনো বরফ ঘষবেন না। তাহলে গোটা মুখে বসে যাবে

* রোদে বাইরে বের হলে অবশ্যই সানস্ক্রিন লোশন ব্যবহার করবেন। সানস্ক্রিন লোশন ব্যবহার করার সময় অবশ্যই খেয়াল রাখবেন তাতে যেন সান প্রোটেকশন ফ্যাক্টর এসপিএফ অন্তত ১৫ হয়। ওয়াটার প্রুফ সানস্ক্রিনও ব্যবহার করতে পারেন।

* পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকতে দিনে দুইবার গোসল করুন। গোসলের শেষের পানিটুকুতে কয়েকফোটা গোলাপজল মিশিয়ে গোসল শেষ করুন। সারাদিন শরীরটা ফুরফুরে লাগবে।

* রোদে পোড়া কালো দাগ দূর করতে কমলার খোসা বেটে মুখে লাগিয়ে ১০ মিনিট রাখুন। তারপর মুখ ধুয়ে ফেলুন।
*
*কাঁচা হলুদ, মশুরী ডাল এবং কাঁচা দুধ অথবা দুধের সর একসাথে পিষে একটা পেস্ট তৈরি মুখে লাগান। ২০ মিনিট পর স্বাভাবিক পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন। এভাবে রূপচর্চা করলে আপনার ত্বক উজ্জ্বল হয়ে উঠবে।

 
 

খুশির খবর খুশির খবর !!! আমাদের তিতাস বাসিদের জন্য বড়ই খুশির খবর

65046_438122506253063_1940168916_n

আপনারা জেনে খুশি হবেন যে আমাদেরি কিছু তরুণ তাজা  ছেলে-মেয়ে নেট এ আড্ডা দেয়ার জন্য একটি বিশেষ ব্যাবস্তা করেছে আর সেটি হল ভয়েছ চ্যাট রুম ,হ্যা এখানে আপনি মন খুলে কথা বলতে পারবেন ,পারবেন নিজের মায়ের ভাষায় কথা বলতে পারবেন, একবার গুরে দেখে আসুন আমি নিশ্চিত যে আপনাদের কাছে ভাল লাগবেই ,তাহলে আর দেরি কেন এখনি লগ ইন করুন http://titaseradda.com/chat/ আমাদের সাথে যারা যারা আছেন তারা হলেন আমাদের গানের রাজা প্রিয় সোহেল, আছেন আমাদের মজার মানুষ মুশারফ ,লিঙ্কন,রিয়াদ মাসুম,হিরা ভাই সহ আর মজার মজার মানুষ , আছেন একটি রেডিওর আর যে তাসান 

TitAseRaDda
Currently there are 31 users in the chatroom.
Online Users: saqibkhan60 , Linkkon* , masum* , RIYADH* , TITASERADDA ,BoRo_Bhai sajal_moon* , bow_cay , elomelo_jibon , probashir_gan , josh , 0chena_photik , nir_hara_pakhi , jalal , heart_hackers , sompa , dr34ms-h0us3 , noasorok , sonda , welcome , aspire , intel , agree , no-1 , aminai , cute_girl , evil_angel , –RiYaDh– , misto , BDXTOR , mosharaf , humayon